skip to Main Content

আবার ও এক ‘ সত্যজিত ‘ তবে নিজের সৃষ্টিতে অনবদ্য দর্শকমহলে

সুবর্ণলতা রায় , কলকাতা ২২ নভেম্বর :’সত্যজিত রায়’ তার কাজের মাধ্যমে দর্শকের অন্তরের গভীরে এমন ভাবে পৌঁছেছেন যা বললেও কম পড়ে ৷ তবে ২০১৮ সালে দাড়িয়ে এমন এক পরিচালকের আগমন ঘটেছে তা বাহবা পূর্ণ৷ তিনিও হলেন ‘সত্যজিত’৷ তবে তিনি ‘দাস‘ ৷ যার নিজের ধারার ছবির মাধ্যমে দর্শকদের প্রত্যাশা পূরণ করছেন৷ ২০১৭ ডিসেম্বরে ডেডলাইন ছবির মাধ্যমে নিজের চলা শুরু করেছেন আন্তর্জাতীয় এবং জাতীয় ফেস্টিভ্যাল এর মাধ্যমে ৷ শ্রদ্ধেয় পরিচালক ঋতুপর্ণ ঘোষ কে উতসর্গ করে (এলজিবিটি ) “ধর্ষন লিঙ্গ ভেদে হয় না , যে কেউ ধর্ষন হতে পারে “ বিষয়বস্তর ওপর কাজটি দারুন প্রশংশা কুড়িয়েছে ও পুরস্কৃত হয়েছে৷ ২০১৮ নভেম্বরে দুটি ছবি নিয়ে হাজির হচ্ছেন যেখানে দুটি ছবিই পথ শিশুকে নিয়ে ৷ যার মধ্যে একটি ” দুই পৃথিবী “আবর্জনা কুড়ানো ছেলে যার বাবা সদ্য মারা যায় দুর্গা পূজায় এবং মা শারীরিক ভাবে বিকল হয়ে পড়ে ৷ তারপর ছেলেটি কিভাবে তার স্বপ্ন নিয়ে বাঁচে তা সম্পূর্ণ জানতে পারবো আর কিছু দিনের মধ্যে ৷ একটি ছবি যেখানে নির্বাক অন্যটি সবাক৷ দুটি ছবি আবারও আন্তর্জাতিক ছবি প্রদর্শনী মেলা থেকে আমন্ত্রণ পেয়েছে ৷

পরিচালকের কথায় , আমি বাংলায় গর্বিত এই ধরনের কাজ করতে পারছি বলে ৷ সবাই কাজ করছে সেটা সত্যিই ভালো লাগছে ৷ তবে আমি আমার বলার ধরণ  কে অন্যরকম কাজে লাগানোর চেষ্টা করছি ৷ আমি এমন কিছু অভিনেতা অভিনেত্রী কে ছবির জন্য বাছাই করি যারা সেই ধরনের চরিত্র কে তার নিজের কাছে

খুবই কঠিন মনে হবে অথবা তাকে দর্শন কালে কখনই মনে হবে যে সে এই ধরনের চরিত্র করতে পারত ৷ তাই আমি স্নেহা বিশ্বাসের মতো একজন বলিষ্ঠ অভিনেত্রী কে নিয়েছি নির্বাক ছবিটিতে যা তাকে আরো বলিষ্ঠ প্রমাণ করবে ৷ এবং দুটি ছবিতে নতুন দুটি শিশুকে আবিস্কার করেছি ৷ এরপর দর্শকরাই দেখবে ৷ 

২০১৯ সালে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচিত্রের সম্পূর্ণ  ভিন্ন ধারার গল্পের মাধ্যমে ইন্ডাস্ট্রি তে পা রাখছেন ৷

Back To Top